পারলে জি বিস্কুটের শিশুটি কী শুধুই ছবি ? Is Parle G Biscuits' Girl Real ?

পারলে_জি_বিস্কুটের_শিশুটি
Picture source: indianexpress.com

পারলে জি বিস্কুটের শিশুটি 

পারলে জি বিস্কুটের প্যাকেটে একটি বাচ্চা মেয়ের ছবি দেখে আমাদের মনে নিশ্চয়ই কৌতুহল হয়েছে। সত্যি কি মেয়েটির বাস্তবে উপস্থিতি আছে, নাকি একটি ইলুষ্ট্রেশন। কোন কোন মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে মেয়েটির নাম নিরু দেশপান্ডে। আবার কোন সোর্স বলছে মেয়েটি ইনফোসিসের চেয়ারপারসন সুধা মূর্তি অর্থাৎ যার ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যায়। আবার অন্য কোন মাধ্যম জানাচ্ছে যে মেয়েটির নাম গুঞ্জন গুন্দানিয়া। 

তাহলে প্রশ্ন হচ্ছে মেয়েটির আসল নাম কি? নাকি পারলে জি বিস্কুটের শিশুটি শুধুই ছবি। চলুন আজকে বিষয়টি সম্বন্ধে ডিটেইলসে জানার চেষ্টা করি। 


ছবি নিয়ে জল্পনা

দেখুন পারলে জি বিস্কুটের প্যাকেটের গায়ে আঁকা শিশুটির ছবি নিয়ে জল্পনা নতুন নয়। আর তাছাড়া আমরা যারা নষ্টালজিয়ায় ভুগি অর্থাৎ যারা পুরাতন স্মৃতিমধুর জিনিস বা বিষয় গুলি আঁকড়ে ধরে থাকতে ভালোবাসি, তাদের কাছে পুরাতন যা কিছু নিয়ে যে কোন খবরই অত্যন্ত আনন্দদায়ক একটি বিষয় হয়ে দাড়ায়। আর তাই সোশ্যাল মিডিয়া বা অন্যান্য মাধ্যমে এই ধরনের খবর প্রকাশ পেলে সেগুলো আমাদের কাছে যথেষ্ট গ্রহণযোগ্যতা পায়। 


খবরে প্রকাশিত

তেমনি সোশ্যাল মিডিয়ায় পারলে জি বিস্কুটের প্যাকেটের গায়ে আঁকা শিশুটির ছবি নিয়ে ভাইরাল হওয়া খবরে প্রকাশিত নাম গুলি হল নীরু দেশপান্ডে, সুধা মূর্তি বা গুঞ্জন গুন্দানিয়া, যারা এই জল্পনা-কল্পনার কেন্দ্রে রয়েছেন। এদের মধ্যে নীরু দেশপান্ডের নাম খবরে বেশি এসেছে।


সুন্দর একটি গল্প

কিছু মিডিয়া আউটলেট দাবি করেছে যে নীরু দেশপান্ডে নাগপুরের বাসিন্দা এবং তার বয়স প্রায় ৬৫ বছরের মত। এবং তার বিস্কুটের কভারে উঠে আসার সুন্দর একটি গল্প সেখানে প্রকাশিত হয়েছে। যেমন তখন তার মাত্র চার বছর বয়স এবং তার বাবা ছিলেন একজন পেশাদার ফটোগ্রাফার। তিনি তার মেয়ের একটি ছবি তুলেছিলেন নিতান্তই শখের বশে। কিন্তু সেই ছবিটি এত বেশি সুন্দর ও আকর্ষণীয় হয়েছিল যা পারলে জি বিস্কুটের মোড়কে রাখার জন্য নির্বাচিত হয়।


আরো কিছু কথা


বেনারসি শাড়ির ইতিহাস ও বর্তমান


পান্নালাল ভট্টাচার্য্য র অকাল মৃত্যু ও অজানা তথ্য


গ্রামোফোন রেকর্ডে কুকুরের ছবির ইতিহাস


হেলেন মানেই অসাধারণ নাচ


রেলের টাইম কিপার থেকে সুপারস্টার কে এল সায়গল


পথের পাঁচালীর ইন্দির ঠাকুরণ সম্পর্কে অজানা তথ্য


জল্পনার অবসানের জন্য

যাহোক সব জল্পনা-কল্পনার অবসানের জন্য পার্লে প্রোডাক্টের গ্রুপ প্রোডাক্ট ম্যানেজার মায়াঙ্ক শাহ প্রশ্ন করা হলে তিনি এই গল্পগুলিকে সম্পূর্ণভাবে অস্বীকার করেন এবং তিনি বলেন যে পারলে জি বিস্কুটের প্যাকেটের গায়ে আঁকা বাচ্চাটি কেবল একটি চিত্র। যেটি ১৯৬০ এর দশকে এভারেস্ট ক্রিয়েটিভ এর দ্বারা প্রস্তুত করা হয়েছিল।

অনেক শক্তিশালী গণমাধ্যম এই ঘটনাটির আসল ব্যাখ্যা প্রকাশ করেছে। তাই সব দিক বিচার করে বলাই যায় যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া এই সমস্ত মুখগুলি একটিও সঠিক নয়। আসলে পারলে জি বিস্কুটের প্যাকেটে প্রকাশিত শিশুটি একটি নিছকই চিত্র।


আজকের লেখাটি (পারলে জি বিস্কুটের শিশুটি কী শুধুই ছবি ? Is Parle G Biscuits' Girl Real ?) ভালো লাগলে কমেন্টে জানাতে পারেন। আমাদের মন জংশন ইউটিউব চ্যানেলে ঘুরে আসতে পারেন আরো পুরাতনী তথ্য জানার জন্য, ধন্যবাদ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ